তেলাপিয়া মাছ খেলে তিনটি কঠিন রোগ হতে পারে, তেলাপিয়া মাছ খেতে বারণ করেন বিশেষজ্ঞরা - জানুন বিস্তারিত

মাছ চাষের ক্ষে’ত্রে তেলাপিয়া মাছ চাষ বেশ জনপ্রিয় ও লাভজনক। দামে কম, স্বাদও ভালো তাই তেলাপিয়া মাছ বেশ জনপ্রিয়। এছাড়া এই মাছে কাঁ’টাও কম, ভাজা-ভু’না-বারবিকিউ সবই সহজে রান্না করা যায়। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা, এই মাছ খেতে বারণ করেন। কারণ কী? আসুন জেনে নিই সেগুলো: 

 # তেলাপিয়া মাছ পরোক্ষভাবে নানা প্রাণঘাতী রোগের কারণ হতে পারে।
# খামারে চাষ করা হয় এই মাছ।
# হাঁস-মুরগির বিষ্ঠা খামারে খাবার হিসেবে দেওয়া হয়। 
# এই খাবার খেয়ে মাছের তেলাপিয়ার শরীরে রোগ-জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে। 
# ডিবুটাইলিন নামে এক প্রকার কেমিক্যাল জমা হয় মাছে। 
# তাই খামারে বড় হওয়া এসব তেলাপিয়া খেলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে। 
# ক্যানসার, হৃদরোগ, হাঁপানিও হতে পারে।   সূত্র : ফক্স নিউজ।

 

# খামারে চাষ করা হয় এই মাছ। # হাঁস-মুরগির বি’ষ্ঠা খামারে খাবার হিসেবে দেওয়া হয়। # এই খাবার খেয়ে মাছের তেলাপিয়ার শরীরে রো’গ-জী’বাণু ছড়িয়ে পড়ে। # ডিবুটাইলিন নামে এক প্রকার কে’মিক্যাল জমা হয় মাছে। # তাই খামারে বড় হওয়া এসব তেলাপিয়া খেলে হার্ট অ্যা’টাকের ঝুঁকি বাড়ে। # ক্যানসার, হৃদ’রোগ, হাঁপা’নিও হতে পারে।’

তবে সম্প্রতি একাধিক গবেষণায় তেলাপিয়া মাছের বেশ কয়েকটি ক্ষ’তিকর দিক প্রকাশ পেয়েছে।তেলাপিয়া মাছ খেলে মরণব্যাধি ক্যা’ন্সারের ঝুঁকি প্রায় ১০ শতাংশ বেড়ে যেতে পারে বলে দাবি করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) গবেষকরা। এশিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি হওয়া তেলাপিয়া মাছগুলোর ওপর গবেষণা করেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগ।

গবেষণায় তারা এসব তেলাপিয়া মাছের দেহে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক বিষ খুঁজে পান। ৮০০-র বেশি নমুনা পরীক্ষা করেন তারা। সে পরীক্ষায় ‘ডিবিউটিলিন’ এবং ‘ডাইঅক্সিন’ নামের মারাত্মক ক্ষতিকর রাসায়নিকের উপস্থিতি পান এসব তেলাপিয়ার মাংসে।

প্লাস্টিকের বিভিন্ন জিনিস তৈরিতে ব্যবহৃত হয় এই ‘ডিবিউটিলিন’ যা মানবদেহে প্রবেশ করলে স্থুলতা, হাঁপানি, অ্যালার্জি এবং নানা রকমের বিপাকীয় রোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এর চেয়েও ভয়ংকর রাসায়নিক ‘ডাইঅক্সিন’ যা মানবদেহে প্রবেশ করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) এর রিপোর্টে জানানো হয়েছে, তেলাপিয়া উৎপাদনে ব্যবহৃত মাছেদের খাদ্য হাঁস, শূকর বা মুরগির দেহাবশেষ থেকে এসব বিষ জন্মেছে তাদের শরীরে এগুলো খেলে মাছগুলো দ্রুত বেড়ে ওঠলেও একই সঙ্গে বিষাক্ত হয়ে ওঠে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি হওয়া তেলাপিয়া মাছের বাজারের ৭০ শতাংশই চীনের দখলে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৩৫টিরও বেশি দেশে বর্তমানে তেলাপিয়া মাছের চাষ হয়। বাংলাদেশে ও ভারতের উৎপাদিত তেলাপিয়াতে কোনো ক্ষতিকর উপাদান নেই বলে দাবি করা হয়েছিল। হোটেল কিংবা বাজারে মাছ কেনার বা খাওয়ার আগে জেনে নিন মাছটি মুক্ত পানির নাকি খামারের তেলাপিয়া।

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles
Author

I am M.A Shohag Khan writer of Subidhay.com

Recent Articles
Feb 25, 2021, 1:39 AM - Hafiz
Feb 24, 2021, 6:56 PM - M.A Shohag
Feb 23, 2021, 10:39 PM - M.A Shohag
Feb 23, 2021, 9:40 PM - M.A Shohag
Feb 14, 2021, 12:03 PM - Hafiz
Feb 13, 2021, 1:51 AM - Md Aminul islam
Feb 12, 2021, 6:38 PM - Md Aminul islam
Feb 12, 2021, 6:25 PM - Md Aminul islam
Feb 12, 2021, 6:10 PM - Md Aminul islam
Feb 12, 2021, 6:06 PM - Md Aminul islam
Feb 12, 2021, 11:36 AM - Hafiz
Feb 12, 2021, 12:10 AM - Muhammad saeed